পোস্টগুলি

সেপ্টেম্বর, ২০২৩ থেকে পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে

Amadpur Heritage Stay | Amadpur Jamidar Bari | বৈঠকখানা আমাদপুর | 1 Day Tour Near Kolkata | Village Durga Puja

ছবি
বৈঠকখানা আমাদপুর বৈচিত্র্যে ভরা আমাদপুর থেকে গত বছরের শেষে ঘুরে এলাম।টেরাকোটার কাজ দেখতে আমরা যারা বিষ্ণুপুর যাই তাদের বলি বর্ধমান জুড়েও ছড়িয়ে আছে অসংখ্য টেরাকোটার মন্দির।বর্ধমান জেলার মেমারির কাছেই এই আমাদপুর,গঞ্জ নয় প্রকৃত অর্থে গ্রাম।মাঠে মাঠে চোখ জুড়ানো ফসল,ধানের গোলা,পুকুর,মন্দির তারই মাঝে চৌধুরীদের বাড়ি।সদর,অন্দর,ঠাকুরবাড়ি,দীঘি নিয়ে চৌধুরীদের বাড়ি। বর্তমান বাস এখানে হলেও আগে ছিলেন বাংলার মুর্শিদাবাদ জেলার বাসিন্দা।বর্ধমান ও হুগলি জেলার বহু এলাকা মুঘল সম্রাট জাহাঙ্গীরের থেকে পেয়ে আমাদপুরে এসে বসবাস শুরু করেন।নিজেদের প্রতিরক্ষার্থে গ্রামের চার সীমানায় সাঁওতালদের জায়গা দেন,গড়ে ওঠে সাঁওতালদের গ্রাম।তারা তীরন্দাজিতে তুখর।চৌধুরী উপাধি পান,আসলে তারা সেনশর্মা।উপাধি পান শ্রীকৃষ্ণ সেনশর্মা তবে ইংরেজদের থেকে নয় মুঘলদের থেকে।ইংরেজ সমসাময়িক জমিদারি হলেও তারা কোনোদিনই ইংরেজদের পৃষ্টপোষকতা করেননি বরং পরিবারের বেশ কিছু মানুষ পরবর্তীতে স্বাধীনতা সংগ্রামে সাহায্যই করেছিলেন। বাড়িটি ৩৭৫ বছরের পুরোনো।সেই বাড়িতেই বর্তমানে ৬টি ঘরে হোমস্টের ব্যাবস্থা।আছে বেলজিয়াম কাঁচ,জয়পুর থে

Iskcon Temple Newtown Kolkata | Places To Visit Near Kolkata | Newtown Iskcon Mandir Like Mayapur | নিউ টাউনে মায়াপুরের ইস্কন মন্দির

ছবি
কোলকাতার নতুন আকর্ষণ হরে কৃষ্ণ হরে কৃষ্ণ....কৃষ্ণ প্রেম,কৃষ্ণ ভক্তিতে প্লাবিত হওয়া দেশ বিদেশের অগণিত ভক্তদের প্রিয় নাম ইস্কন।আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ বা ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি ফর কৃষ্ণ কনশাসনেস (ISKON) হলো গৌড়ীয় বৈষ্ণব মতবাদের অনুসারী একটি হিন্দু ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান।১৯৬৬ সালে নিউইয়র্ক শহরে অভয়াচরনারবিন্দ স্বামী প্রভুপাদ এই সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। বর্তমানে এ হেন দেশ নেই যেখানে ইস্কনের মন্দির নেই,কোথাও বা আছে একাধিক। ইস্কন বলতেই মায়াপুরের কথা মনে পড়লেও আমাদের কোলকাতা কিন্তু ইস্কনপ্রেমীদের কাছে বিশেষ ভূমিকা রাখে।ইসকনের প্রতিষ্ঠাতা বলুন বা হরে কৃষ্ণ মুভমেন্টের উদ্যোক্তার জন্ম এই কোলকাতাতেই ১৮৯৬ সালের ১লা সেপ্টেম্বর।৮১ বছর বয়সে ১৯৭৭ সালের ১৪ই  নভেম্বর তার দেহাবসান হয় বৃন্দাবনধামে তাঁর সমাধি মূর্তি রয়েছে।কোলকাতার মিন্টোপার্কের কাছে বা অন্যান্য যায়গায় ইস্কনের মন্দির থাকলেও নবতম ইস্কন মন্দির হলো সাপুর্জিতে।শুধু নতুনই নয় এই ইস্কন হতে চলেছে কোলকাতার সর্ববৃহৎ মন্দির তো বটেই, হয়ে উঠবে মায়াপুরের সমতুল্য।  খোলা মেলা শান্ত পরিবেশে ভোগ প্রসাদের পবিত্রতা হোক বা সন্ধ্যা আ

Netaji Bhavan Kolkata | Netaji Museum | Great Escape of Netaji | Subhas Chandra Bose Kolkata House

ছবি
নেতাজীর মহানিষ্ক্রমণ ১৯৪১ সাল।ব্রিটিশের নজরবন্দী হয়ে কলকাতার এলগিন রোডের বাড়িতে তখন নেতাজী।১৬ই জানুয়ারি,সেই অর্থে দিনটি খুব কম মানুষই মনে রেখেছি।ছুটি নেই,ক্যালেন্ডারে লাল কালি দিয়ে চিহ্নিত করা নেই,আলোচনা নেই,তবে কেনই বা মনে রাখবো,তাই না?প্রতি বছর এই দিনটি ফিরে ফিরে আসে,সেই বাড়ি,সেই গাড়ি সবই রয়ে গেছে নেই শুধু মানুষটি।মানুষটি  আর কেউ নন,আমাদের নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বোস।১৯৪১ সালের ১৬ই ও ১৭ই জানুয়ারির মাঝরাতে শেষ বারের মত বাড়ি ছেড়ে,কলকাতাকে ছেড়ে নিজের সিডান গাড়িতে ছদ্মবেশে ব্রিটিশের চোখে ধুলো দিয়ে পৌঁছেছিলেন গোমো রেলওয়ে স্টেশনে,উদ্দেশ্য ছিল যে কোনো ভাবেই জার্মানির বার্লিনে পৌঁছানো।তাঁকে গোমো রেলওয়ে স্টেশন অবধি পৌঁছে দিয়েছিলেন তাঁর ভ্রাতুষ্পুত্র শিশির কুমার বসু নিজে গাড়ি চালিয়ে,যে গাড়িতে নেতাজী বসেছিলেন মহম্মদ জিয়াউদ্দিনের বেশে গাড়ির পিছনের সিটে।  নেতাজীর সেই বাড়ি আজ মিউজিয়াম,নেতাজী ভবন।সেই গাড়িটিও মিউজিয়ামে সুন্দর ভাবে সংরক্ষিত।মিউজিয়ামটি পরিচালনার গুরুভার বহন করে চলছে নেতাজী রিসার্চ ব্যুরো।তিনতলা বাড়ির পুরোটাই মিউজিয়াম।ফ্রিডম মুভমেন্ট হোক বা নেতাজীর জীবনের ঘটনাবল

Roy Villa-RKM Darjeeling-Bhagini Nivedita House-Darjeeling Sightseeing

ছবি
চেনা দার্জিলিঙের অজানা ইতিহাস আজ বলবো শৈলশহর দার্জিলিঙের সেই চারতলা বাড়িটার কথা,রায় ভিলার কথা।ইউরোপিয়ান ক্যাসেলের আদলে তৈরি দার্জিলিঙের পাহাড়ের কোলে লেবং রোডের এই চারতলা বাড়িটির সাথে জড়িয়ে আছে অনেক স্বনামধন্য ব্যাক্তিত্ব,তাদের জীবনের গুল্প।যার মধ্যে অন্যতম ভগিনী নিবেদিতা।পাহাড়ের লোকেরা রায় ভিলা বলতেই নিবেদিতার বাড়ি বোঝে। সত্যিই সিস্টার নিবেদিতার স্মৃতি বিজড়িত রায় ভিলা,যেখানে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছিলেন ১৯১১সালের ১৩ ই অক্টোবর ৪৩ বছর বয়সে। বাড়িটির বয়স প্রায় ১১৫ বছর হবে।এই বাড়িটির মালিক ছিলেন দ্বারকানাথ রায়,যিনি সম্পর্কে প্রেসিডেন্সি কলেজের প্রিন্সিপাল পি.কে.রায়ের দাদা।পরবর্তী সময়ে প্রখ্যাত বিজ্ঞানী জগদীশ চন্দ্র বসু তার বন্ধু দ্বারকানাথ রায়ের থেকে এই বাড়িটি ভাড়া নিয়েছিলেন,গ্রীষ্মকালীন আবাসন হিসাবে।তিনি ও তার স্ত্রী অবলা বসু নিজের হাতে সাজিয়েছিলেন বাড়িটিকে।সিস্টার নিবেদিতার শরীর ক্রমশ খারাপ হতে থাকলে বিজ্ঞানী ও তাঁর পত্নী নিবেদিতাকে দার্জিলিঙের এই রায় ভিলায় এসে থাকার আমন্ত্রণ জানান,পাহাড়ের পরিবেশে তার শরীরের উন্নতি হবে নিশ্চিত সেই আশায়।ভগিনী নিবেদিতা সেই

Popular Posts

Sonajhuri Haat-Khoai Mela-Baul Gaan-Santiniketan

Rani Rashmoni Ghat Halisahar | Fuchka Gram | Dayouting Near Ganges | Weekend Tours Near Kolkata

Top 10 Rajbari near Kolkata-Zamindar Houses in Bengal-Heritage Home Stay-Dayout Plan-Weekend Tour

Chatu Babu Latu Babur Bari - Bonedi Barir Durga Puja