Gobardanga Jamidar Bari-Prasannamoyee Kali Mandir-Gobardanga Kalibari

Gobardanga Jamidar Bari-Prasannamoyee Kali Mandir-Gobardanga Kalibari-Gobardanga Rajbari

উত্তর কলকাতা জুড়ে ছড়িয়ে আছে যেমন বাড়ির পুজোর গন্ধ,আভিজাত্যের ছোঁয়া,বনেদিয়ানার গন্ধ, তেমনি শহর থেকে একটু দূরে এই পুজোয় আছে মাটির সোঁদা গন্ধ,আছে প্রাণের টান।

খোলামেলা পরিবেশে ৩০০ বছরের পুজোয় এবার প্রথম ঘটলো ছন্দপতন।হচ্ছে না এবছর জমিদারবাড়ির ঠাকুর দালানে পুজো।ইতিহাস রচনা করলো ২০২০ দুর্গা পূজা।আগে পলাশীর যুদ্ধ, বিশ্বযুদ্ধ কোনো পরিস্থিতিতেই থেমে থাকেনি এই পুজো।ঘট পুজোর মাধ্যমে পুজো সম্পন্ন করবে এবার পরিবারের সদস্যরা।মন খারাপ জমিদার বাড়ির সদস্যসহ গোবরডাঙ্গা বাসীর।কলকাতা ও বিদেশ থেকেও সদস্যরা প্রতিবার পুজোর টানেই বাড়ি ফেরেন। গোবরডাঙ্গা ,বারাসাত মহকুমা ও হাবড়া থানার অধীন, কলকাতা থেকে প্রায় ৫৮ কিমি দূরে। 

কথিত আছে, টাকির জমিদারের লাঠি আর গোবরডাঙ্গার জমিদারের হাতি। হাতি ছিল গোবরডাঙ্গার জমিদারদের ঐতিহ্য ও জাকজমকের নিদর্শন।এক নামে সবাই চিনতো তাঁদের হাতি পোষার সখের জন্যই।আজ হাতি না থাকলেও কিন্তু তার সাক্ষীস্বরূপ রয়ে গেছে সাড়ে তিন নম্বর(৩.৫) প্ল্যাটফর্ম।আগে এই প্ল্যাটফর্ম দিয়েই হাতি উঠতো ট্রেনে।যেত যশোর বা নানান অঞ্চলে খাজনা আদায়ে,জমিদারি পরিদর্শনে। 

You can also experience a day trip to Gobardanga with detailed plan and information : 

গোবরডাঙ্গা ঐতিহাসিক ভাবে স্মরণীয় হয়ে থাকার আর একটি কারণ হলেন শ্রীশচন্দ্র বিদ্যারত্ন। প্রথম বিধবাবিবাহ (  First Widow Remarriage-7th December 1856যিনি করেছিলেন সেই মহান ব্যক্তি শ্রীশচন্দ্র বিদ্যারত্ন ছিলেন গোবরডাঙ্গার বাসিন্দা।গোবরডাঙার প্রথম চেয়ারম্যান ও ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট

Related Posts : Gobardanga Prasannamoyee Kali Mandir

গোবরডাঙ্গা কথার অর্থ :-

সংস্কৃত শব্দ থেকে এর উৎপত্তি।তিনটি পৃথক শব্দের সংমিশ্রণ তৈরি এটি। Go-Bar-Danga.ভাষাবিদদের মতে , Go - world/Earth, Bar - greatest, Danga - Place. এককথায়, 'The greatest place on earth'। এই অঞ্চলের আদিবাসিন্দারা ছিলেন গোয়ালা।সেই সূত্রে গো প্রতিপালন হতো খুব ভালই। আর হিন্দু এলাকায় গোবর পবিত্র সেই পুরাকালে থেকেই।

জমিদার বাড়ির অতীত ইতিহাস :-

পূর্বে গোবরডাঙ্গা ছিল কুশদ্বীপের/কুশদহর অন্তর্গত।যমুনা বয়ে যেত কুশদ্বীপের মধ্য দিয়ে,এখন যদিও মৃতপ্রায়।আদি জমিদার বাড়ি আজ আর নেই।স্মৃতি স্বরূপ রয়েছে সিংহ দুয়ার। বর্তমান বাড়ি মেজোবাবুর বাড়ি হিসাবে স্থানীয় লোকজনের কাছে পরিচিত।


পূর্বপুরুষ :-

মুখোপাধ্যায় পরিবারের পূর্বপুরুষরা ছিলেন যশোরের বাসিন্দা।বংশের আদিপুরুষ রামরাম মুখোপাধ্যায় এই পুজো প্রথম শুরু করেন যশোরে।পরে বংশধররা গোবরডাঙ্গায় চলে আসেন।পুত্র শ্যামরাম মুখোপাধ্যায় গোবরডাঙ্গার ইছাপুরের চৌধুরী বাড়ির জামাই ছিলেন। এনার পুত্র খেলারাম মুখোপাধ্যায় মামাবাড়ীতে পুজো শুরু করেন।ইংরেজ শাসনকালে ২৪ পরগনার  ম্যাজিস্ট্রেট ছিলেন হিঙ্কল সাহেব।সাহেবের কাজের তদারকি করতেন খেলারাম। নিখুঁত কাজে ও নিষ্ঠায় খুশি হয়ে তাকে দান করেন বেশ কিছু জমি এই ইংরেজ সাহেব। সেখানেই তৈরি হয় রাজবাড়ি। আসল বাড়িটি আজ আর নেই।এখন যে বাড়িটি সেটি ১৯১৪ সালে অতিথিশালা হিসাবে ব্যবহার শুরু হয়।পরে ভাগাভাগিতে বড়ো তরফের সন্তান গিরিজা প্রসন্ন মুখোপাধায়ের ভাগে পরে।সেই থেকেই এখানে বসবাস শুরু।প্রবেশ করতে দেয়া হয় না এমনি সময়, তবে পুজোর কদিন অবাধ প্রবেশ। সকলের জন্য মূল দরজা খুলে দেয়া হয়।বাড়ির সামনেই ফোয়ারা, পুকুরসামনে দিয়েই বয়ে চলেছে যমুনা নদী। আজ যদিও কচুরিপানা তাকে গ্রাস করেছে।

Gobardanga Jamidar Bari-Prasannamoyee Kali Mandir-Gobardanga Kalibari-Gobardanga Rajbari

জমিদারবাড়িতে গেলে আজও চোখে পরে ইংরেজদের তৈরি ফেয়ারি হল।যা তখন একতলা ছিল।জমিদাররা পরে সেটিতে দোতলা করেন।এখনও কিছু ঐতিহাসিক দুর্লভ জিনিসপত্র আছে।জমিদারিতে  'সেটেলমেন্ট প্রথা ' চালু করেন গিরিজাপ্রসন্ন।তাতে খুশি হয়ে পঞ্চম জর্জ তাকে ' রাজা ' খেতাব দিতে চান।ততদিনে রায়বাহাদুর খেতাব পাওয়া হলে গেছিলো তাই তিনি উপাধির বদলে চেয়ে নেন ঐতিহাসিক গুরুত্ব সম্পন্ন এক তরবারি।সেটি না দিলেও সেটির আদলে উপহার স্বরূপ বানিয়ে দেয়া হলো তাঁকে বহু মূল্যবান এক তরবারি রাজবাড়ির উত্তরসূরী উষাপ্রসন্ন মুখোপাধ্যায় ছিলেন গোবরডাঙ্গা কলেজের বাংলার অধ্যাপক ও কবি মানুষ। নিজস্ব  কালীবাড়ি প্রসন্নময়ী মন্দিরের নাম অনুযায়ী প্রতিটি বংশের পুরুষের নামে প্রসন্ন কথাটি যুক্ত থাকে।

পুজোর বৈশিষ্ট্য :- 

স্বপ্নাদেশে শুরু হয় এবাড়ির পুজো। মা দুর্গা এখানে প্রসন্নময়ী নামে পূজিত হন। এক চালের প্রতিমা। জন্মাষ্টমীর দিন হয় কাঠামো পুজো।বাবলা গাছের কাঠ দিয়ে হয় কাঠামো তৈরি।মহালয়ার পরদিন অর্থাৎ প্রতিপদ থেকেই ঘট বসিয়ে পুজো হয় প্রতিবার।মায়ের প্রতিমা প্রতিষ্ঠিত হয় ষষ্ঠীর দিন। 

Gobardanga Jamidar Bari-Prasannamoyee Kali Mandir-Gobardanga Kalibari-Gobardanga Rajbari

সপ্তমীতে  বংশের কালীমন্দির থেকে কলাবৌ এনে মায়ের অস্ত্রদান ও  সন্ধ্যাআরতি।অষ্টমীর,নবমী,দশমী নিয়ম করে পুজো চলে।আগে মোষ বলির প্রথা ছিল।তারপর শুরু হলো পাঁঠা বলির। আর ৯৭ সালে পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায় বলির আচার।বর্তমানে কুমড়ো ও আঁখ বলি হয়। জমিদার বাড়ির  অষ্টম বংশধর স্বপন প্রসন্ন মুখোপাধ্যায়ের  কথায়,আগে পাঁচদিন ধরে চলত মহোৎসব।বড়ো বড়ো লোকজন,আমলারা আসতেন এই পুজোর দিনে।  চলচ্চিত্র পরিচালক সত্যজিৎ রায় দুবার এসেছেন।

Gobardanga Jamidar Bari-Prasannamoyee Kali Mandir-Gobardanga Kalibari-Gobardanga Rajbari

আগে ষষ্ঠীরর দিন মুখোপাধ্যায় পরিবারের লোকেরা  কামান দিয়ে শুরু করতেন পুজো।জানান দেয়া হত।স্থানীয় লোকেরা পুজোর জন্য প্রস্তুত করতো নিজেদের।অতীতে বাড়ি থেকে যমুনার ঘাট অবধি বিসর্জন ছিল দেখার মত।থাকত হাতির শোভাযাত্রা।

দশমীর দিন সন্ধ্যায় আকাশে একটি তারা দেখা মাত্রই প্রতিমা বিসর্জন হতো।পুজোকে ঘিরে চলত যাত্রাপালা।পূজোয় বরাবরই সাধারণ জনসাধারণের প্রবেশ ছিল অবাধ। অঞ্জলি থেকে নিত্য ভোগ,সবেতেই ছিল তাদের অধিকার।

ঠিকানা :-  গাইঘাটা রোড,কুমার পল্লী,গোবরডাঙ্গা, পশ্চিমবঙ্গ ৭৪৩২৫২

পথ নির্দেশ :-

নিকটবর্তী স্টেশন গোবরডাঙ্গা। শিয়ালদাহ-বনগা লাইন এর যেকোনো ট্রেনই যায় এর ওপর দিয়ে। ধরতে পারেন বনগা লোকাল,গোবরডাঙ্গা লোকাল বা ঠাকুরনগর লোকাল।

আর গাড়িতে যেতে চাইলে বনগাগামী যশোর রোড ধরে যেতে হবে।বারাসাত থেকে ৩৫ কিমি ও কলকাতা থেকে প্রায় ৫৮ কিমি।

গুগল ম্যাপ: 

https://goo.gl/maps/vPRpUo1s9rJdJBr28

তথ্য সূত্র :- গোবরডাঙ্গা-খাটুরার ইতিহাস ও কুশদহ প্রসঙ্গ ( ড. নিরঞ্জন বন্দোপাধ্যায় ) ও স্থানীয় অধিবাসীবৃন্দ

Related Posts : Chatu-Babu-Latu-BabuTop 50 Bonedi Barir Durga Pujo, Sovabazar Rajbari Durga Puja Kolkata Heritage BuildingsItachuna RajbariTagore's House in EnglandBengal English Castle

মন্তব্যসমূহ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

If you have any query, please let me know.

Popular Posts

Top 10 Rajbari near Kolkata-Zamindar Houses in Bengal-Heritage Home Stay-Dayout Plan-Weekend Tour

Garalgacha Jamidar Bari-Garalgacha Babuder Bari-Bonedi Barir Pujo

Gobardanga Prasannamoyee Kali Mandir-Gobardanga Kalibari